বৈঠকে যাবেন না পার্থ

নিউজ ডেস্ক : শরিকদের ক্ষোভ প্রশমনে আগামীকাল সোমবার ২০-দলীয় জোটের বৈঠক ডেকেছে বিএনপি। বিকাল ৪টায় গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে। বৈঠকে ২০-দলীয় জোট থেকে সম্প্রতি বেরিয়ে যাওয়া বাংলাদেশ জাতীয় পার্টি-বিজেপির সভাপতি ব্যারিস্টার আন্দালিভ রহমান পার্থকেও আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। তবে পার্থ বৈঠকে যোগ দেবেন না বলে জানিয়েছেন।
বিএনপির নির্বাচিত ৫ এমপির শপথ কেন্দ্র করে ২০-দলীয় জোট থেকে আন্দালিভ রহমান পার্থের বেরিয়ে যাওয়া ও অন্যান্য শরিক দলের নেতিবাচক প্রতিক্রিয়ার মধ্যে জোটের এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। বিএনপির নির্ভরযোগ্য সূত্র জানায়, জোটের শরিকদের ক্ষোভ প্রশমনে এ বৈঠক ডাকা হয়েছে। বৈঠকে আমন্ত্রণ পাওয়ার কথা নিশ্চিত করেছেন লেবার পার্টির সভাপতি ডা. মোস্তাফিজুর রহমান ইরান।

এর আগে গত ১১ ফেব্রুয়ারি এ জোটের সর্বশেষ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পর সেটি ছিল জোটের দ্বিতীয় বৈঠক। দীর্ঘদিন ধরে বৈঠক না ডাকায় জোটের বাধন হালকা হয়ে গেছে বলে মনে করেন নেতারা।

সূত্র জানায়, বৈঠকে চলমান রাজনৈতিক পরিস্থিতি, বিশেষ করে বিজেপির জোট ত্যাগ এবং আরেক শরিক লেবার পার্টির বিএনপিকে দেয়া আলটিমেটামসহ সার্বিক বিষয় নিয়ে আলোচনা হবে। বৈঠকে জোট সংস্কারেরও প্রস্তাব তোলা হতে পারে। জোটের আকার কমিয়ে আনার বিষয়ে আলোচনা হতে পারে।

জোট ত্যাগকারী আন্দালিভ রহমান পার্থের বাংলাদেশ জাতীয় পার্টিকেও বৈঠকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। শনিবার রাতে গুলশান কার্যালয় থেকে আন্দালিভ রহমান পার্থকে ফোন করে বৈঠকে আমন্ত্রণ জানানো হয়। তবে পার্থ বৈঠকে যোগ না দেয়ার কথা জানিয়েছেন।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে পার্থ বলেন, ২০-দলীয় জোটের বৈঠকে আমাকে আমন্ত্রণ জানিয়ে বিএনপি চেয়ারপারসনের গুলশান কার্যালয় থেকে ফোন দেয়া হয়েছে। তবে আমি ওই বৈঠকে অংশগ্রহণ করব না।

জোটের বৈঠকে আমন্ত্রণ পাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করে বিজেপি মহাসচিব আবদুল মতিন সাউদ জানান, একটা দায়িত্বশীল রাজনৈতিক দল হিসেবে অন্যান্য রাজনৈতিক দলের সঙ্গে যে সম্পর্ক থাকা দরকার ২০ দলের সঙ্গে সেটি অবশ্যই আমাদের পক্ষ থেকে থাকবে। আমরা সম্পূর্ণ নৈতিক জায়গা থেকে ২০-দলীয় জোট থেকে বের হয়েছি। সুতরাং তাদের বৈঠকে আমাদের যাওয়ার কোনো প্রশ্নই ওঠে না।

তবে আজ বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও জোটের সমন্বয়ক নজরুল ইসলাম খানও পার্থের সঙ্গে কথা বলতে পারেন। সে ক্ষেত্রে বিজেপির বৈঠকে যোগ দেয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

আপনার মতামত