ট্রাফিক অব্যবস্থাপনা নিয়ে হাইকোর্টের রুল

গর্ভের শিশুর লিঙ্গ পরিচয় প্রকাশে নিষেধাজ্ঞা চেয়ে হাইকোর্টে রিট

নিজস্ব প্রতিবেদক: ট্রাফিক সিগন্যালের অব্যবস্থাপনার বিষয়ে সংশ্লিষ্টদের নিষ্ক্রিয়তা কেন অবৈধ ঘোষণা করা হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছে হাইকোর্ট। একইসঙ্গে, ট্রাফিক সিগন্যালের বিষয়ে অপারেটিভ সিগন্যাল সিস্টেম মনিটরিংয়ে অব্যবস্থাপনার বিষয়ে প্রতিবেদন দাখিলের জন্য বলা হয়েছে।

আগামী চার সপ্তাহের মধ্যে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সচিব, স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের সচিব, পুলিশের মহাপরির্দশক, ডিএমপি কমিশনার, কমিশনার ট্রাফিক, দুই সিটি করপোরেশনের সিইওকে এই রুলের জবাবা দিতে বলা হয়েছে।

একই সঙ্গে ট্রাফিক সিগন্যালের বিধি প্রণয়ন করতে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের প্রতি নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। আগামী ৩০ দিনের মধ্যে অ্যাডিশনাল কমিশনার ট্রাফিককে এ বিষয়ে অগ্রগতি প্রতিবেদন দাখিল করতে হবে। আদেশের বিষয়টি নিশ্চিত কনে রিটকারী আইনজীবী ব্যারিস্টার মনোজ কুমার।

এক রিটের শুনানি নিয়ে সোমবার হাইকোর্টের বিচারক এম. ইনায়েতুর রহিম ও বিচারক মোস্তাফিজুর রহমানের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এই রুল জারি করে। আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করে ব্যারিস্টার মনোজ কুমার। তার সঙ্গে ছিলেন অ্যাডভোকেট সুলাইমান হাওলাদার মিন্টু।

আইনজীবী জানান, দিনের পর দিন ট্রাফিক সিগন্যালের অব্যবস্থাপনার জন্যে অনাকাঙ্খিত দুর্ঘটনা ঘটছে। ঠিক মতো বাতি জ্বলছে না। দেখা গেছে, বাতি জ্বলছে তারপরও ট্রাফিক পুলিশ হাতের ইশারায় গাড়ি থামিয়ে আবার চলতে বলছে।